মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

এক নজরে পৌরসভা

কালের স্বাক্ষী বহনকারী মেঘনা নদীর নিকটবর্তী সবুজ শ্যামলে গড়ে  উঠারামগতি  উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী অঞ্চল হলো রামগতি পৌরসভা । কালপরিক্রমায়আজ রামগতি পৌরসভা শিক্ষা, সংস্কৃতি, ধর্মীয়অনুষ্ঠান, খেলাধুলা সহ বিভিন্নক্ষেত্রে তার নিজস্ব স্বকীয়তা আজও সমুজ্জ্বল।লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি উপজেলার চর আলেকজান্ডার,চর আলগী ও চর বাদাম ইউনিয়নের কিছু অংশ নিয়ে মেঘনার কোল ঘেষে ১১.৮১ বর্গ কিলোমিটার আয়তন নিয়ে মোট নিয়ে ০৯টি ওয়ার্ডে বিভক্ত হয়ে ২০০০সালে রামগতি পৌরসভা গঠিত হয়।২০০১সালের আদম শুমারী অনুযায়ী মোট ২৯০০০হাজার লোক সংখ্যা নিয়ে পৌর প্রশাসক নেতৃত্বে পৌরসভার পদযাত্রা শুরু হয়। পোরসভা এরিয়া কোন কল কারখানা ,শিল্প প্রতিষ্ঠান ও বড় ধরনের কোন আবাসিক স্থাপনা গড়ে না উঠায় এখানে কৃষি ভূমির হার ৫০% এর বেশি।যার ফলে বেকার রত্বের হার ৬০%মত।উক্ত পৌরসভায় শিক্ষিতের হার ৪০%।মেঘনার তীরে অবস্থিত হওয়ায় প্রতি নিয়ত জোয়ারের পানি কিছু কিছু ওয়ার্ড প্লাবিত হয়।এই পৌরসভায় ০৪টি হাইস্কুল,১১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়,২টি কলেজ,আছে।

 

সাধারণ তথ্যাদি

 

পৌরসভার নাম

রামগতি পৌরসভা।

স্থাপিত

২০০০ইং।

শ্রেণী

উপজেলা

রামগতি।

জেলা     

লক্ষীপুর।

বেভাগ

চট্টগ্রাম

নির্বাচনী এলাকা                 

লক্ষ্মীপুর -৪(রামগতি-কমলনগর)।

সীমানা  

উত্তরে কমলনগর উপজেলা, পূর্বে নোয়াখালী সদর উপজেলা, দক্ষিণে হাতিয়া উপজেলা এবং পশ্চিমে দৌলতখান ও তজুমদ্দিন ।

 

জেলা সদর হতে দূরত্ব         

৪০ কিঃমিঃ

আয়তন                               

 

১১.৮১ বর্গ কিলোমিটার।

জনসংখ্যা                            

 

৩৫,০০০ (এষ্টিমেটেট)।

পুরুষ                                   

 

১৮,০০০ জন।

মহিলা  

১৭,০০০জন।

লোক সংখ্যার ঘনত্ব             

 

২৯৬৪ (প্রতি বর্গ কিলোমিটারে)।

বাৎসরিক জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার

 

১.৩০%

ওয়ার্ড

৯ টি।

মসজিদ                                 

 

 

৩০ টি।

মন্দির                                   

৮ টি।

নদ-নদী                              

২ টি (মেঘনা ও বুলুয়া)।

হাট-বাজার

৩ টি।

ছবি